শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা অর্থ সমস্যা থেকে মুক্তি

শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা অর্থ সমস্যা থেকে মুক্তি

শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা ব্যবহার করে কি ভাবে অর্থ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন জেনে নিন

শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা – আমাদের প্রত্যেকের বাড়িতে রান্নাতে শুকনো লঙ্কার বিভিন্ন ব্যবহার দেখে আসছি  ছোটোবেলা থেকে। আমাদের মা, দিদি,স্ত্রীরা রান্নার স্বাদের জন্য রান্নাতে বিভিন্ন মাত্রায় শুকনো লঙ্কা ব্যবহার করে থাকেন। এবং অতি সহজলোভ্য এই উপাদান সকলেরই বাড়ির রান্নাঘরে কমবেশী উপস্থিত  থাকে। আজকের বিষয়টা কিন্তু রান্নাবান্না নিয়ে নয়। শুকনো লঙ্কার ব্যবহারে কি ভাবে আমরা আমাদের আর্থিক কষ্ট থেকে মুক্তি পেতে পারি তা নিয়ে এই প্রবন্ধে আলোচনা করা হয়েছে।

শুকনো লঙ্কার টোটকা – অনেকে ভাবছেন যে এই টোটকা ব্যবহার করে যদি সত্যি আর্থিক কষ্ট ঘুচে যেত তাহলে তো সকলরেই সমস্যার সমাধান হয়ে যেতো। তা তো হচ্ছে না। আগে জানতে হবে

টোটকা বিষয়টি কি ? 

টোটকা হল এমন কিছু প্রয়োগ যা শুভ বা অশুভ কাজের উদ্দেশ্যে বা সেই কাজের গতি বাড়াতে বা কমাতে সাহায্য করে। অনেকটা অনুঘটকের মতো।

শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা অর্থ সমস্যা থেকে মুক্তি

আজকের প্রসঙ্গ কি ভাবে আর্থিক সমস্যার থেকে মুক্তি পাওয়া যায় ? কি ভাবে আর্থিক উন্নতি ঘটানো যায়

সুতরাং উপায়টি যে জন্য করা হচ্ছে সেটা একটি শুভ কর্মের জন্য। আর এই শুকনো লঙ্কার প্রাচীন পদ্ধতির দ্বারা আর্থিক সমস্যা কাটানোর উদ্দেশ্যে একটি প্রয়োগ। যা কিনা আমাদের ভাগ্যের চাকা ঘোরাতে সাহায্য করবে।

আসুন বিস্তারিত জানা যাক কি ভাবে কি কি উপায় শুকনো লঙ্কা ব্যবহার করে আর্থিক সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

আরো পড়ুন শিবের মন্ত্র শিবের ইচ্ছাপূরণ মন্ত্র মনোস্কামনা পুরোন হবেই হবে

শুরুতেই বলেছিলাম এটা একটি ঘরোয়া প্রয়োগ। যা খুবই সহজে করা যাবে। 

আমাদের জীবন সব সময় উত্থান পতনের মধ্যে দিয়ে অতিবাহিত হয়। কখনো ভালো আবার কখনো খারাপ। কখনো আয় আবার কখনো ব্যয়। কখনো শান্তি আবার কখনো অশান্তি। এটাই জীবনের ধর্ম। এসবের মধ্যে দিয়ে জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আর তার জন্য বর্তমানে সব থেকে প্রয়োজনীয় জিনিস অর্থ টাকা পয়সা। 

এই প্রবন্ধে মোট দুটি প্রয়োগের উল্লেখ করবো, অবশ্যই ঘরোয়া প্রয়োগ। যা অতি সহজেই আপনি করতে পারবেন।

শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা অর্থ সমস্যা থেকে মুক্তি

দেখুন, কোনো একটি কাজ করার আগে সব থেকে প্রয়োজন হল বিশ্বাস। যদি বিশ্বাস না থাকে তাহলে তো আর সেই কাজ করে কোনো লাভ নেই। সুতরাং যদি মনে করেন এই প্রতিকার বা টোটকা গুলো ব্যবহার করবেন তা হলে অবশ্যই বিশ্বাসের সাথে করতে হবে। 

আরো পড়ুন আর্থিক উন্নতি তে বাধা কাটানোর সহজ উপায় ঘরোয়া টোটকা

শুকনো লঙ্কার ঘরোয়া টোটকা অর্থ সমস্যা থেকে মুক্তি

প্রথম প্রয়োগ – সাতটি ভালো ধরনের গোটা শুকনো লঙ্কা আর একটি হলুদ কাপড় এই টোটকাটির জন্য লাগবে। যে কোন শুক্রবার দিন হোক বা রাত আপনাকে সাতটি শুকনো লঙ্কা নিয়ে হলুদ কাপড়ে ভালো করে জড়িয়ে আপনার টাকা পয়সার রাখার স্থানে রেখে দেবেন। এবং শুকনো লঙ্কা গুলো যখন হলুদ কাপড়ে বাধবেন লক্ষ্য রাখবেন যেন ভেঙে না যায় বা বোটা খুলে না যায়। মনে মনে আপনার ইষ্ট দেবদেবীকে স্মরণ করে নিজের আর্থিক সমস্যা থেকে মুক্তির মনোকামনা জানিয়ে কাজটি করুন। 

ম্যাজিক কিছুই হবে না। তবে ক্রমশ আপনার আর্থিক উন্নতিতে গতি আসবে। ফলে আপনার আর্থিক সমস্যার সমাধান হবে। আর একটা কথা, প্রতি শুক্রবার কিছু না কিছু টাকা ঐ স্থানে ( যেখানে আপনি হলুদ কাপড়ে মুড়ে শুকনো লঙ্কা গুলো  রেখেছেন ) অর্থাৎ আপনার টাকা পয়সা রাখা স্থানে রাখুন। 

দ্বিতীয় প্রয়োগ – এটি একদিকে যেমন আপনার আর্থিক বাধা কে খন্ডন করবে আবার ওপর দিকে আপনার সকল বাধা বিপত্তিকে কাটাবে। এমনকি নজর দোষ নাশের জন্যও এই প্রয়োগটি করা যেতে পারে। এই ক্ষেত্রে প্রয়োজন 21টি উন্নত মানের গোটা শুকনো লঙ্কা, একটি তামার ঘটি বা বাটি, তবে ঘটি হলেই ভালো হয়। আর পরিষ্কার জল। 

কি করবেন – ঐ 21টি লঙ্কা থেকে বীজ গুলো কে বের করে নেবেন। ( এই কাজটি খুবই যত্ন সহকারে করতে হবে ) এবার একটি তামার ঘটিতে জল নিয়ে তারমধ্যে ঐ সমস্ত বীজ আপনি ঢেলে দেবেন। এবার আপনার শোয়ার স্থানে বা ঘরে সারারাত রেখে দেবেন। পরের দিন সকালে সেই ঘটিটি নিজের কপালে ঠেকিয়ে ঐ জল রাস্তার মধ্যে ফেলে দেবেন। কোনো জলাশয়ে ঐ জল ফেলবেন না। যে কোনো মঙ্গলবার করে এই ক্রিয়াটি সাতটি মঙ্গলবার করতে হবে। 

আগের দিন সোমবার রাতে লঙ্কা গুলো থেকে বীজ গুলো বার করে তামার ঘটিতে জল নিয়ে ঢেলে ঘরে রেখে দেবেন আর পরের দিন মঙ্গলবার নিজের মাথায় ঠেকিয়ে রাস্তায় ফেলে দেবেন। এই ক্রিয়াটি করার জন্য কোনো মন্ত্র নেই। কে যে উদ্দেশ্যে করছেন সেটা নিজের ইষ্ট দেবদেবীকে জানিয়ে দেবেন মনে মনে। 

Leave a Comment

Your email address will not be published.

x